আমের বাগানে পুলিশ মোতায়েনের নির্দেশ দিল হাইকোর্ট

125

ক্ষতিকর রাসায়নিক দ্রব্য যাতে মিশাতে না পারে সেই জন্য রাজশাহীসহ সারা দেশের আমের বাগানগুলোয় পুলিশ মোতায়েনের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট । সেইসাথে ফলের বাজার ও আড়তগুলোতে আমসহ অন্যান্য ফলে রাসায়নিক মেশানো হচ্ছে কিনা তা নজরদারি করতে জেলা প্রশাসন, পুলিশ ও র‌্যাবের সমন্বয়ে টিম গঠনের নির্দেশনা দিয়েছে আদালত।

মানবাধিকার সংগঠন হিউম্যান রাইটস পিস ফর বাংলাদেশের আবেদনের প্রেক্ষিতে মঙ্গলবার বিচারপতি এফ আর এম নাজমুল আহাসান ও বিচারপতি কে এম কামরুল কাদেরের বেঞ্চ এই রায় দিয়েছে।

আবেদনকারী সংগঠনের পক্ষে শুনানিতে অংশ নিয়েছেন আইনজীবী মনজিল মোরসেদ। রাষ্ট্রপক্ষের শুনানিতে ছিলেন সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল সাইফুল আলম।আইনজীবী মনজিল মোরশেদ বলেন, “আইজিপি, র‌্যাবের মহাপরিচালক, বিএসটিআইয়ের ব্যবস্থাপনা পরিচালককে (কেমিক্যাল টেস্টিং উইং) দেশের বড় বড় ফলের বাজার ও আড়তগুলো মনিটরিংয়ে টিম গঠনের নির্দেশ দিয়েছে হাই কোর্ট।আর পুলিশ মোতায়েনের নির্দেশনাটি দেওয়া হয়েছে রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনার, পুলিশের রাজশাহী রেঞ্জের ডিআইজিকে।”

সহকারী এটর্নি জেনারেল মনজিল মোরসেদ বলেন, আগামী এক মাসের মধ্যে আদেশ বাস্তবায়ন করে শিল্প সচিব, স্বরাষ্ট্র সচিব, খাদ্য সচিব, পুলিশের মহাপরিদর্শক, বিএসটিআইয়ের ব্যবস্থাপনা পরিচালক, র‌্যাবের মহাপরিচালক, বিএসটিআইয়ের পরিচালক (কেমিক্যাল টেস্টিং উইং), রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনার, পুলিশের রাজশাহী রেঞ্জের ডিআইজি এবং এনবিআর চেয়ারম্যানকে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।

সহকারী এটর্নি জেনারেল মনজিল মোরশেদ আরও বলেন, আগামী এক মাসের মধ্যে আদেশ বাস্তবায়ন করে শিল্প সচিব, স্বরাষ্ট্র সচিব, খাদ্য সচিব, পুলিশের মহাপরিদর্শক, বিএসটিআইয়ের ব্যবস্থাপনা পরিচালক, র‌্যাবের মহাপরিচালক, বিএসটিআইয়ের পরিচালক (কেমিক্যাল টেস্টিং উইং), রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনার, পুলিশের রাজশাহী রেঞ্জের ডিআইজি এবং এনবিআর চেয়ারম্যানকে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।

একজন ক্রেতা হাইকোর্টের এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়ে মন্তব্য করেন , “সরকার এতো পুলিশ কোথায় পাবেন” ?