এক স্কোয়াড মিয়ানমার সেনাবাহিনী নিহত

152

০৯ এপ্রিল, রাখাইন, মায়ানমার । মায়ানমারের রাখাইনের উত্তরাঞ্চলের বুথিডংয়ের নিকট বৌদ্ধ বিদ্রোহী গোষ্ঠী আরাকান আর্মি (AA) ‘র হামলায় দেশটির সেনাবাহিনীর একটি স্কোয়াডের সব সদস্যের প্রাণহানি ঘটেছে। গত শুক্রবার বুথিডংয়ে এর নিকট ঘটনা ঘটলেও দেশটির গণমাধ্যমে সেনাবাহিনীর এক ক্যাপ্টেনসহ একটি স্কোয়াডের প্রাণহানির খবর এসেছে সোমবার।

সেনাবাহিনী ও নিহত সেনাসদস্যদের পরিবারের বরাত দিয়ে এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে দেশটির ইংরেজি পত্রিকা “দৈনিক দ্য ইরাবতি”।

মায়ানমার সেনাবাহিনীর প্রধান কার্যালয়ের মুখপাত্র ব্রিগেডিয়ার জেনারেল জ্য মিন তুন এই হামলার কথা স্বীকার করেছেন। তিনি বলেছেন, শুক্রবার রাখাইনে আরাকান আর্মির সঙ্গে সংঘর্ষে সেনাবাহিনীর ক্যাপ্টেন চিত কো কো-সহ বেশ কয়েকজন সদস্য নিহত হয়েছে।

তবে হামলায় কতজন সেনাসদস্য নিহত হয়েছেন, সে ব্যাপারে তথ্য দিতে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন সেনা বাহিনীর মুখপাত্র। নিহত ক্যাপ্টেন চিত কো কোর দীর্ঘদিনের বন্ধু স্য লিউইন স্য ফেসবুকে এক পোস্টে দাবি করেছেন, ক্যাপ্টেন চিত কো কোর নেতৃত্বে সেনাবাহিনীর প্রায় ২০ সদস্য বাংলাদেশ সীমান্তের নিকট বুথিডংয়ে আরাকান আর্মির বিদ্রোহীদের বিপক্ষে অভিযান চালাতে গিয়েছিল।

কিন্তু অপ্রত্যাশিতভাবে আরাকান আর্মি ( এ এ ) ‘র বিদ্রোহীরা সেনাবাহিনীর এই ইউনিটকে চারদিকে থেকে ঘিরে ফেলে। এসময় হামলা-পাল্টা হামলার মুখে তার বন্ধু ক্যাপ্টেন চিত বিদ্রোহীদের ছোড়া রকেট চালিত গ্রেনেডে আহত হন। আক্রান্ত এলাকা থেকে তার মরদেহ সরিয়ে নিতে পারেনি সেনাবাহিনী।

রাখাইনে সেনাবাহিনীর পুরো একটি ইউনিট আক্রান্ত হওয়ার পর সেখানে অতিরিক্ত সৈন্য পাঠাতে ব্যর্থ হওয়ায় অনেক ফেসবুক ব্যবহারকারী দেশটির সেনাবাহিনীর জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তাদের সমালোচনা করছেন।

সুত্র – দেশে বিদেশে

https://www.deshebideshe.com/news/details/174141?fbclid=IwAR2BdMyIZdeWp-Ma7IKr1-bc2-_Q3JflkRCAzYTMmTdF-4z7oaAw7kJXb2Q