ঘূর্ণিঝড় ফনি হারিকেনে রুপ নিচ্ছে – আঘাত আসবে বাংলাদেশেও

78

৩০ এপ্রিল, অনিদ্যবাংলা ডেস্ক ।

বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট নিম্নচাপ ঘূর্ণিঝড় ফণীতে পরিণত হলেও এখন তা হ্যারিকেনে রূপ নিতে যাচ্ছে। চলতি সপ্তাহের শেষের দিকে ভারত ও বাংলাদেশের ওপর আছড়ে পড়তে পারে বলে জানিয়েছেন আবহাওয়াবিদরা।

বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট নিম্নচাপটি ঘূর্ণিঝড় ফণীতে পরিণত হলেও এখন তা আবার হ্যারিকেনে রূপ নিচ্ছে। এটি চলতি সপ্তাহের শেষের দিকে ভারত ও বাংলাদেশের ওপর আছড়ে পড়তে পারে বলে জানিয়েছেন আবহাওয়াবিদরা।

ওয়েদার ডটকম জানিয়েছে, ঘূর্ণিঝড় ফণী বর্তমানে বঙ্গোপসাগরের দক্ষিণ-মধ্যঞ্চলীয় এলাকায় অবস্থান করছে। এ ঝড়ের গতি ঘন্টায় ৩৯ থেকে ৭৩ মাইল পর্যন্ত । বায়ুমণ্ডলীয় অনুকূল পরিস্থিতিতে ঝড়টি আরো শক্তিশালী হয়ে ভয়াবহ হ্যারিকেনে রূপ নিতে পারে।

এদিকে ঘূর্ণিঝড় ফণী বড় ধরনের হ্যারিকেনের আকার ধারণ করতে পারে বলে আভাস দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের যৌথ টাইফুন সতর্কতা কেন্দ্র। তারা বলছে, বৃহস্পতিবার বা শুক্রবার নাগাদ ফণী ক্যাটাগরি-৩ বা তার চেয়েও শক্তিশালী হ্যারিকেনে রূপ নিতে পারে।

আবহাওয়া অধিদপ্তর জানিয়েছে, ঘূর্ণিঝড় ফণী বাংলাদেশের উপকূল ৪ মে রাত অথবা ৫ মে সকাল নাগাদ আঘাত হানতে পারে। তবে দু একদিনের মধ্যে এর গতিপথ নির্ধারিত হবে বলে মনে করা হচ্ছে। ফলে এটি ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় উপকূলে আঘাত হানবে, বাংলাদেশ উপকূলে আঘাত না হানারও সম্ভাবনা রয়েছে। তবে এ ঝড়ের প্রভাব এ দেশেও পড়বে।

বলা হচ্ছে, বৃষ্টি না হওয়ায় তাপমাত্রা বেড়েই চলছে। ঘূর্ণিঝড় ফণী আঘাত না হানা পর্যন্ত চলমান তাপদাহ অব্যাহত থাকবে। এর আগে কালবৈশাখীর সম্ভাবনাও খুব একটা নেই। সে ক্ষেত্রে অন্তত পাঁচ দিন  দিন-রাতে গরম থাকবে।