প্রকাশ্যে মৃত্যুদণ্ডই হোক ধর্ষকের একমাত্র শাস্তি !

39

ড.দেওয়ান রাশিদুল হাসানের কলাম-

প্রকাশ্যে মৃত্যুদণ্ডই হোক ধর্ষকের একমাত্র শাস্তি !

নারীর প্রতি যৌন সহিংসতার অন্যতম ভয়াবহ রূপ ধর্ষণ। শোচনীয় অবস্থা । ধর্ষণের মত নারকীয় কর্মকান্ডে লিপ্ত থেকেও কোনও প্রকার অনুশোচনা তাদের মধ্যে হয় না। ‘মহামারী’তে রূপ নিয়েছে এখন বাংলাদেশের ধর্ষণ।

জাতীয় মহিলা সংস্থার চেয়ারম্যান অধ্যাপক মমতাজ বেগম বাংলাদেশ প্রতিদিনকে বলেন, সমাজে ‘মহামারী’ আকারে যেভাবে ধর্ষণের ঘটনা বৃদ্ধি পেয়েছে, তা চিন্তা করা যায় না। ছোট শিশু থেকে শুরু করে মধ্যবয়সী নারী কেউই ধর্ষকের হাত থেকে রেহাই পাচ্ছে না। সমাজের এই অনৈতিক অবস্থা থেকে উত্তরণ তথা আমাদের শিশু, কিশোরী ও নারীদের রক্ষা করা শুধু প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার একার পক্ষে সম্ভব নয়। এ জন্য দলমত নির্বিশেষে সবাইকে নিজ দায়িত্ব পালন করতে হবে। মুক্তিযুদ্ধের সময় দেশ রক্ষায় সবাই যেমন ঝাঁপিয়ে পড়েছিল, একইভাবে নারী-পুরুষ প্রত্যেককে ধর্ষণের ‘মহামারী’ থেকে দেশকে মুক্ত করতে হবে।

বাংলাদেশ হিউম্যান রাইটস ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক অ্যাডভোকেট এলিনা খান বলেন, সারা দেশে ধর্ষণ একরকম ‘মহামারী’তে রূপ নিয়েছে। পৃথিবীর অন্য দেশেও ধর্ষণের ঘটনা ঘটে কিন্তু এ রকম মহামারী রূপ নেয় না। এমনকি ধর্ষকরা আলামত গোপন করতে ভুক্তভোগীকে নৃশংসভাবে হত্যা করছে। ধর্ষকরা অশ্লীল সিনেমা ও পর্নোগ্রাফি দেখে এ ধরনের অপরাধে ঝুঁকছে। পুরো ২০১৮ সালে মোট ধর্ষণের শিকার হন ৯৪২ জন নারী। ওই বছর গণধর্ষণের শিকার হন ১৮২ জন আর ধর্ষণ শেষে হত্যা করা হয় ৬৩ জন নারীকে।

সাম্প্রতিক সময়ে গণমাধ্যমে প্রকাশিত ধর্ষণের প্রতিবেদন, মানবাধিকার সংস্থা ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর কাছ থেকে পাওয়া তথ্য বিশ্লেষণ করে দেখা যায়, ধর্ষণের মামলা করতে গিয়ে প্রায় অর্ধেক নারী ও শিশু থানায় হেনস্তার শিকার হয়। সব সমাজেই অপরাধী আছে। আবার সমাজে ভালো মানুষেরও জন্ম হয়।

একটি সমাজ তখনই সভ্য হয়, যখন খারাপের তুলনায় ভালোর আধিক্য থাকে। কিন্তু আমাদের সমাজে খারাপের অনেক ‘শেড’ আছে, অপরাধীর অনেক সমর্থক আছে। এখনো রাজধানীর পাবলিক বাসে নারীদের জন্য নির্ধারিত আসনে বসতে কিছু পুরুষের প্রবল বাগ্বিতণ্ডা চোখে পড়ে, অনেকে কুৎসিত কথা বলতেও ছাড়েন না। আর প্রাত্যহিক চলাফেরায়, রাস্তাঘাটে যেকোনো বয়সের নারীর প্রতি ইঙ্গিতপূর্ণ ও অনাকাঙ্ক্ষিত শারীরিক স্পর্শ তো আছেই।

সংবাদপত্র হাতে নিলে একটি দিনও বাদ যায় না, যেদিন ধর্ষণের খবর প্রকাশিত হয় না। আমরা ধর্ষণের ঘটনায় এতটাই অভ্যস্ত হয়ে গেছি যে এই ঘৃণ্য অপরাধের কথা শুনলে এখন আমরা অনেকেই আর বিচলিত হই না। প্রকাশ্যে মৃত্যুদণ্ডই হোক ধর্ষকের একমাত্র শাস্তি ।