প্রেমিকার ভাইকে খুন করে থানায় আত্মসমর্পণ!

67
অনিন্দ্যবাংলা ডেক্স :   ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলায় প্রেম ও আর্থিক লেনদেন সংক্রান্ত বিরোধের জেরে সোহেল নামে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। পরে হত্যাকাণ্ডে জড়িত যুবক সাহাবুদ্দিন থানায় গিয়ে আত্মসমর্পণ করেন বলে জানায় পুলিশ।

গতকাল শনিবার বিকেলে উপজেলার আচারগাও ইউনিয়নের ঝাওগড়া গ্রামে ওই ঘটনা ঘটে। নিহত সোহেল গ্রামের বাসিন্দা আবুল কাশেমের ছেলে। নান্দাইল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. কামরুল ইসলাম মিয়া এ তথ্য জানিয়েছেন।

স্থানীয়দের উদ্ধৃতি দিয়ে ওসি জানান, ঝাওগাড়া গ্রামের বাসিন্দা সাহাবুদ্দিনের সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে প্রেমের সম্পর্ক চলে আসছিল নিহত সোহেলের বোনের। সাহাবুদ্দিনের কাছে বোনকে বিয়ে দেওয়ার আশ্বাস দিয়ে বিভিন্ন সময় তাঁর কাছ থেকে টাকা লেনদেন করতেন সোহেল। কিন্তু সম্প্রতি বোনকে বিয়ে দেওয়া ও পাওনা টাকা শোধ করা নিয়ে সাহাবুদ্দিনের সঙ্গে  বিরোধ সৃষ্টি হয় সোহেলের।

এরই মাঝে গতকাল বিকেলে সোহেলকে নিজের বাড়িতে ডেকে নিয়ে যান সাহাবুদ্দিন। ওই সময় কথাবার্তার মাঝে উভয়ই উত্তেজিত হয়ে পড়ে। এরই  এক পর্যায়ে সাহাবুদ্দিন ধারালো অস্ত্র দিয়ে সোহেলকে এলোপাথাড়ি কুপিয়ে গুরুতর আহত করেন বলে জানান ওসি।

পরে স্থানীয়রা গুরুতর আহত অবস্থায় সোহেলকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাঁকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ  হাসপাতালে পাঠানো হয়।  সেখানে নেওয়ার পর  চিকিৎসক সোহেলকে মৃত ঘোষণা করেন।

এ ঘটনায় সোহলের বাবা আবুল কাশেম বাদী হয়ে  সাহাবুদ্দিনকে প্রধান আসামি করে তিনজনের নামে নান্দাইল থানায়  মামলা করেছেন বলে জানিয়েছে পুলিশ।