৩০ কোটি বরাদ্ধের পরও ময়মনসিংহে শিশু হাসপাতাল নির্মাণ আটকে আছে !

95

অনিন্দ্যবাংলা :  গত ১৮ আগষ্ট ২০১৪ সালে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, বর্তমান সরকার উন্নয়নে বিশ্বাসী। বিশেষ করে স্বাস্থ্য খাতে রোগীদের শতভাগ সেবা প্রদানে সরকার বদ্ধপরিকর। আর সে পরিকল্পনা অনুযায়ী দেশের প্রতিটি বিভাগে একটি করে শিশু হাসপাতাল নির্মাণ করা হবে।

এরই ধারাবাহিকতায় বিভাগীয় নগরী ময়মনসিংহে একটি মানসম্পন্ন শিশু হাসপাতাল নির্মাণের জন্য স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকে ৩০ কোটি টাকা বরাদ্দ দেয়া হয় গত বছর ২০১৮ সালে। তবে শুধু জায়গার অভাবে এখনো এ বিষয়ে টেন্ডার আহ্বান সম্ভব হয়নি। এ অবস্থায় ময়মনসিংহবাসীর দাবির মুখেও আটকে আছে শিশু হাসপাতালের নির্মাণকাজ।

জেলা প্রশাসন, গণপূর্ত বিভাগ ও সিভিল সার্জন অফিস সূত্রে জানা যায়, গত বছর স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ময়মনসিংহ শহরে শিশু হাসপাতাল নির্মাণের জন্য ৩০ কোটি টাকার প্রশাসনিক অনুমোদন দেয়। এ অনুমোদনের পরই ময়মনসিংহ গণপূর্ত বিভাগকে টেন্ডার আহ্বানের জন্য বলা হয়। সে অনুযায়ী গণপূর্ত বিভাগ শিশু হাসপাতাল নির্মাণের জন্য জায়গা বরাদ্দ চেয়ে জেলা প্রশাসনকে চিঠি দেয়। তবে জেলা প্রশাসন এখনো উপযুক্ত জায়গা নির্ধারণ করতে পারেনি।

গণপূর্ত বিভাগ ময়মনসিংহের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. কামরুজ্জামান জানান, আধুনিক এ হাসপাতাল নির্মাণের জন্য অন্তত এক একর জমির প্রয়োজন। প্রশাসনিকভাবে জায়গার বরাদ্দ চেয়ে জেলা প্রশাসককে চিঠি দেয়া হয়। জেলা প্রশাসন হাসপাতাল নির্মাণের উপযুক্ত জায়গার সন্ধান করে বরাদ্দ দিলেই টেন্ডার আহ্বান করা হবে।

শিশু হাসপাতাল নির্মাণে বিলম্বের বিষয়ে কথা হলে জেলা নাগরিক আন্দোলনের সভাপতি অ্যাডভোকেট আনিসুর রহমান খান বলেন, ‘ময়মনসিংহ এখন বিভাগীয় শহর। এ জেলায় আশপাশের আরো ছয়-সাতটি জেলার মানুষ চিকিৎসা নিতে আসে। এখানে একটি আধুনিক শিশু হাসপাতাল নির্মাণ এখন সময়ের দাবি। জায়গার অভাবে নির্মাণ টেন্ডার আহ্বান আটকে আছে, এটা মেনে নিতে পারছি না। ময়মনসিংহে তো জায়গার অভাব নেই।’

ময়মনসিংহ সিভিল সার্জন ডা. একেএম আব্দুর রব বলেন, ময়মনসিংহ শিশু হাসপাতাল নির্মাণের জন্য ৩০ কোটি টাকার বরাদ্দের চিঠি আমি অনেক আগেই পেয়েছি। বিষয়টি নিয়ে জেলা প্রশাসকের সঙ্গে আলোচনাও হয়েছে। প্রথমে শহরের মাসকান্দায় ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল-২ নির্মাণের জন্য যে জায়গা নির্ধারণ করা হয়েছিল, সেখানে শিশু হাসপাতাল নির্মাণের কথা ভাবা হয়। তখন কাগজপত্র পর্যালোচনা করে দেখা যায়, এটি ময়মনসিংহ ইনস্টিটিউট অব হেলথ টেকনোলজির জন্য বরাদ্দ দেয়া আছে।

পরে নতুন করে আবার জায়গার খোঁজ শুরু হয়। এখন তিনটি জায়গা দেখা হয়েছে। এর মধ্যে মাসকান্দায় ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল স্টাফ কোয়ার্টার এলাকার একটি খালি জায়গা মোটামুটিভাবে নির্ধারণ করা হয়েছে। তবে বিষয়টি এখনো চূড়ান্ত হয়নি। জেলা প্রশাসক, আমি ও গণপূর্ত বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী স্থান পরিদর্শন করার পর এটি নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হবে।

ময়মনসিংহ জেলা প্রশাসক ড. সুভাষ চন্দ্র বিশ্বাস জানান, ময়মনসিংহ শিশু হাসপাতাল নির্মাণের জন্য কয়েকটি জায়গা দেখা হচ্ছে। খুব দ্রুত তা নির্ধারণ করা হবে।

এ বিষয়ে কথা হলে ময়মনসিংহ বিভাগীয় প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মো. নজরুল ইসলাম বলেন, ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রতিদিন পাঁচ হাজার রোগী ইনডোর ও আউটডোরে চিকিৎসা নেন। শিশুদের জন্য আলাদা ওয়ার্ড থাকলেও সেখানে ধারণক্ষমতার কয়েক গুণ শিশুকে চিকিৎসা দিতে গিয়ে হিমশিম খেতে হয়। ফলে খুব দ্রুত ময়মনসিংহ শিশু হাসপাতালের নির্মাণ হওয়া জরুরি।

আপডেট খবরের জন্য চোখ রাখুন : বিস্তারিত কালকে…